মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
৯৫ বছরে এক মিনিটের জন্যও বন্ধ হয়নি কোরআন তেলাওয়াত যে মসজিদে! এবার নায়িকা জয়া আহসানের চার সেকেন্ডের ভি’ডি’ও অ’নলাইনে ভা’ইরা’ল ট্রেড লাইসেন্স ছাড়াই ব্যাংক হিসাব খুলতে পারবেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। এফবি’তে দেশের ভাবমর্তিতে আঘাত করায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজমীর শরীফ জেয়ারত শেষ করলেন। মায়ের সামনেই অটোরিক্সাচাপায় প্রাণ গেল শিশুর ম্যানুয়াল জগৎ ছেড়ে,ভার্চুয়াল জগতের যাত্রা শুরু। ই-প্রেস ক্লাবের চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কমিটি ঘোষনা। সিলেট মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি থেকে সাংবাদিক মাসুদ লস্কর-এর পদত্যাগ। একক নেতৃত্বে গড়ে উঠা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ধারণা। বাংলাদেশের আইজিপি ও জাতিসংঘ পুলিশ প্রধানের আলাপচারিতা। “প্রেস হেলথ কেয়ার”কে অনুমোদন দিলেন বাংলাদেশ সরকার।

বাংলাদেশের আইজিপি ও জাতিসংঘ পুলিশ প্রধানের আলাপচারিতা।

Coder Boss
  • Update Time : শনিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৯৮ Time View

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
আইজিপি বেনজীর আহমেদের সঙ্গে জাতিসংঘ পুলিশ প্রধান লুইস কারিলহোর বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সংস্থার সদরদপ্তরে এ বৈঠক হয়। এতে পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশকে অন্যতম প্রধান পুলিশ সদস্য প্রেরণকারী দেশ হিসেবে উল্লেখ করেন লুইস। পাশাপাশি শান্তিরক্ষায় বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর গৌরবোজ্জ্বল অবদানের স্বীকৃতি এবং পুলিশ সদস্যদের পেশাদারিত্ব ও কর্মদক্ষতার ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি। পূর্ব তিমুর ও হাইতিতে পুলিশ কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যদের যে উঁচু মানের পেশাদারিত্ব ও দায়িত্ববোধ দেখেছেন তা গুরুত্বের সঙ্গে উল্লেখ করেন লুইস। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন মালি ও ডিআর কঙ্গোতে কর্তব্যরত বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যদের পেশাদারিত্বেরও প্রশংসা করেন তিনি।

জাতিসংঘ পুলিশ প্রধান বলেন, বাংলাদেশ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে নারী পুলিশ সদস্য মোতায়েন করে আসছে, যা নারীর ক্ষমতায়ন ও লিঙ্গ সমতা প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

আইজিপি বেনজীর আহমেদ বলেন, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের যেকোনো প্রয়োজনে সাড়া দিতে বাংলাদেশ পুলিশ প্রস্তুত। বিশেষ করে আফ্রিকার ঝুঁকিপূর্ণ শান্তিরক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশের দক্ষ ও পেশাদারী বিশেষায়িত ইউনিট মোতায়েনের অনুরোধ জানান তিনি। এক্ষেত্রে সোয়াট, ক্যানাইন, রিভারাইন, গার্ড পুলিশ, ফরেনসিক ইউনিটসহ বিভিন্ন বিশেষায়িত ইউনিট মোতায়েন এবং জাতিসংঘ পুলিশের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি ও প্রশিক্ষণ আয়োজনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সক্ষমতার কথা তুলে ধরেন বেনজির আহমেদ। জাতিসংঘ সদরদপ্তর ও শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের মাঠ পর্যায়ে উচ্চ পদে বাংলাদেশ পুলিশের কর্মকর্তাদের নিয়োগের অনুরোধ জানান তিনি।

বৈঠকে শান্তিরক্ষা মিশনের জন্য বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী থেকে প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি সরবরাহের বিষয়েও আলোচনা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এসডিজি বাস্তবায়ন, জলবায়ু পরিবর্তন, নারীর ক্ষমতায়ন, মানবাধিকার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা ইত্যাদি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশের তাৎপর্যপূর্ণ অবদানের কথা তুলে ধরেন আইজিপি।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ পুলিশ আগামী দিনগুলোতেও সর্বোচ্চ সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে বলে প্রত্যাশা করেন জাতিসংঘ পুলিশ প্রধান। জাতিসংঘের শান্তি পদক্ষেপ ও বৈশ্বিক সহযোগিতার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষায় বাংলাদেশ পুলিশের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন আইজিপি।

বৈঠকে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের সামরিক উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাদেকুজ্জামান এবং পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের ওভারসিজ অ্যান্ড ইউএন অপারেশন শাখার অতিরিক্ত ডিআইজি নাসিয়ান ওয়াজের উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category

© All rights reserved © 2022 Coder Boss

Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102